শনিবার, মার্চ ২, ২০২৪

ভোলাহাটে নববধূর মরদেহের ময়নাতদন্তে বাধা পুলিশের সঙ্গে বাগ্‌বিতণ্ডা ,

আপডেট:

মোঃসামিরুল ইসলাম:চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি,

চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাটে নববধূর মরদেহের ময়নাতদন্তে বাধা দেয় পরিবারের লোকজন। এতে পুলিশ ও পরিবারের সদস্যদের বাগ্‌বিতণ্ডা ও হাতাহাতি হয়। পরে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

শনিবার (১০ জুন) ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার চামামুশরীভূজা গ্রামে। গৃহবধূর নাম আরিফা (১৫)। তিনি গোমস্তাপুর উপজেলার বাংগাবাড়ী গ্রামের প্রবাসী মো. আলম আলীর মেয়ে ও ভোলাহাট উপজেলার চামামূশরীভূজা গ্রামের মো. মোস্তাকিমের স্ত্রী। মোস্তাকিম ওই গ্রামের মো. মইনুল ইসলামের ছেলে।

নববধূ পরিবার ও পুলিশ বলছে, তিন মাস আগে আরিফার সঙ্গে মোস্তাকিমের বিয়ে হয়। শুক্রবার (৯ জুন) রাতে নবদম্পতি ঘুমাতে যায়। শনিবারর (১০ জুন) সকালে স্ত্রীকে মৃত অবস্থায় দেখে চিৎকার শুরু করেন স্বামী মোস্তাকিম। পরে বাড়ির মানুষসহ এলাকার লোকজন ঘটনাস্থলে যায়। পরে সেখান থেকে ভোলাহাট থানা-পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ নিয়ে যেতে চাইলে বাধা দেয় পরিবারের লোকজন। এ সময় পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে পুলিশের বাগ্‌বিতণ্ডা ও হাতাহাতি হয়। যদিও এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। পরে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

ভোলাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সেলিম রেজা বলেন, ‘মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ হস্তান্তর করা হবে।’

এ সময় ঘটনাস্থলে ভোলাহাট ও গোমস্তাপুর থানার ওসি, সার্কেল এসপিসহ ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:

সর্বাধিক পঠিত